সর্ব ধর্মের উদ্দেশ্যে একটাই।

সুন্দর তোমার জীবন তখনই হয় যখন জ্ঞানের পথে জানবার আকাঙ্খায় ডুবে থাকে। বার্টান্ড রাসেল আবৃত্তি দ্বিতীয় কোন উদ্দেশ্য নেই সে একমাত্র উদ্দেশ্য যদি জানা না থাকে তাহলে ধর্মের সাগরে পাড় কুল পাওয়া যায় না।

এ কথাগুলো অবশ্যই জেনে রাখা উচিত।

হযরত বশরে হাফি একটি মূল্যবান উপদেশ দিয়ে গেছেন। সেই উপদেষ্টি হল আল্লাহ মানা খুবই সহজ কিন্তু জীবন্ত পীর মানা খুবই কঠিন। যারা ছবির মধ্যে পীর মানেন তারা কোন কথাই বলেন না মাজ্জুব ওলি তাদেরকে মানি বলেন তারা আসলে কিছুই মানেন না।

সিজদার বিষয়ে কিছু কথা।

এত লভ হিটলারের একজন অনুসারীর নাম ছিল ডক্টর ওয়েবেলস । সেই গোয়েবলস বলেছিলেন একটি মিথ্যা কথা 17 বার সত্য বলে প্রচার করলে ও অসত্যের মত বেজে ওঠে " হিস্টোরি অফ এম কেটেলবি " ।

নীরবতা এনে দিতে বাধ্য করে।

বালার্ক দৃষ্টির দর্শনে ময়ূখের বিস্ময়কর চমক বিস্ফোরিত নয়নে শুধু চেয়ে দেখি ভাষার গাঁথুনি আর শৈলীটি হারিয়ে যায়। যেমন কমবেশি সবাই রমণীর প্রেমে মৈথুনকালে দুজনেরই ভাষা হারিয়ে ফেলে ।

সাধনায় দর্শন লাভ।

যারা আপন পীর ছেড়ে বাবার কাছে মুরিদ হয়েছেন তাদের আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই।

আমাদের আন্তরিক ডাকে এছাড়া পাব তা ভাবতেও পারেনি ঝাকে ঝাকে অনেক পীর সাহেবের মুরিদেরা এসে আমার পীর বাবার কাছে আবার মুরিদ হলেন এবং সেইসাথে তাদের সাধনা করার প্রবল ইচ্ছা টি দেখে আমরা অবাক হয়েছি তারা আরো বলেছেন তাদের মুরিদ হওয়ার বিষয়টি গোপন রাখতে।

সর্ব ধর্মের উদ্দেশ্যে একটাই।

সুন্দর তোমার জীবন তখনই হয় যখন জ্ঞানের পথে জানবার আকাঙ্খায় ডুবে থাকে।
বার্টান্ড রাসেল
আবৃত্তি দ্বিতীয় কোন উদ্দেশ্য নেই সে একমাত্র উদ্দেশ্য যদি জানা না থাকে তাহলে ধর্মের সাগরে পাড় কুল পাওয়া যায় না।

এ কথাগুলো অবশ্যই জেনে রাখা উচিত।

হযরত বশরে হাফি একটি মূল্যবান উপদেশ দিয়ে গেছেন। সেই উপদেষ্টি হল আল্লাহ মানা খুবই সহজ কিন্তু জীবন্ত পীর মানা খুবই কঠিন।
যারা ছবির মধ্যে পীর মানেন তারা কোন কথাই বলেন না মাজ্জুব ওলি তাদেরকে মানি বলেন তারা আসলে কিছুই মানেন না।

সিজদার বিষয়ে কিছু কথা।

এত লভ হিটলারের একজন অনুসারীর নাম ছিল ডক্টর ওয়েবেলস । সেই গোয়েবলস বলেছিলেন একটি মিথ্যা কথা 17 বার সত্য বলে প্রচার করলে ও অসত্যের মত বেজে ওঠে ”

হিস্টোরি অফ এম কেটেলবি ” ।

নীরবতা এনে দিতে বাধ্য করে।

বালার্ক দৃষ্টির দর্শনে ময়ূখের বিস্ময়কর চমক বিস্ফোরিত নয়নে শুধু চেয়ে দেখি ভাষার গাঁথুনি আর শৈলীটি হারিয়ে যায়। যেমন কমবেশি সবাই রমণীর প্রেমে মৈথুনকালে দুজনেরই ভাষা হারিয়ে ফেলে ।

সাধনায় দর্শন লাভ।

সাধনার এক পর্যায়ে রমনী রূপ ধারণ করে নফসের উপর রূপ পরিপূর্ণভাবে জাগ্রত হয়। তখন সাধক নিজেকেই নিজে রমণী রূপে ধর্ষণ করে ইহাই পরিপূর্ণরূপ ইহাই ট্রানসেডেন্ট …